Home / ENTERTAINING / এবার বিজ্ঞাপনে পরিবারের গল্প!

এবার বিজ্ঞাপনে পরিবারের গল্প!

প্রথমবারের মতো একসাথে একই বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করছেন দিলারা জামান, জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী ও ফারহানা মিলি। রনি ভৌমিকের নির্দেশনায় ভিশন ফ্যানের বিজ্ঞাপনে তারা চারজন মডেল হিসেবে কাজ করছেন। ৮ জানুয়ারি থেকে রাজধানীর তেজগাঁওয়ের কোক ফ্যাক্টরিতে বিজ্ঞাপনটির শুটিং শুরু হয়েছে।
দু’টি পরিবারের গল্প নিয়ে বিজ্ঞাপনটি নির্মিত হচ্ছে। এতে দিলারা জামান ও জাহিদ হাসান মা-ছেলের চরিত্রে এবং চঞ্চল চৌধুরী ও ফারহানা মিলি স্বামী-স্ত্রীর ভূমিকায় মডেল হিসেবে কাজ করছেন। এর আগে তারা চারজন একে অন্যের সঙ্গে বিভিন্ন নাটকে অভিনয় করলেও একসঙ্গে কোনো কাজ করা হয়নি। তবে দিলারা জামান, চঞ্চল চৌধুরী ও ফারহানা মিলি ‘মনপুরা’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন।
বিজ্ঞাপনটিতে কাজ করা প্রসঙ্গে দিলারা জামান বলেন, ‘বিজ্ঞাপনের গল্প ভাবনাটা বেশ ভালো লেগেছে। তা ছাড়া জাহিদ, চঞ্চল, মিলি এরা সবাই আমার খুব স্নেহভাজন। সবার সঙ্গে কাজটি করেও আনন্দ পাচ্ছি।’
জাহিদ হাসান বলেন, ‘যেহেতু সবাই আমরা একে অন্যের খুব কাছের। সে কারণে একটি পারিবারিক আমেজের মধ্য দিয়েই কাজটি করছি। মনে হচ্ছে সত্যি সত্যিই এটি আমাদের পরিবারেরই একটি গল্প।’
চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘এর আগে এমন গল্প এবং এত গুণী শিল্পীর অংশগ্রহণে কোনো বিজ্ঞাপনে আমার কাজ করা হয়ে ওঠেনি। আমি সত্যিই খুব খুশি একটি ভালো কাজের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে পেরে।’
ফারহানা মিলি বলেন, ‘দিলারা জামান ম্যাডাম, জাহিদ ভাই, চঞ্চল ভাই এই তিনজনের সঙ্গে একই বিজ্ঞাপনে কাজ করতে পারাটা এক দারুণ অভিজ্ঞতার বিষয়। যারা এই বিজ্ঞাপনটি নির্মাণের সঙ্গে জড়িত তারা আমার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়েরই ছোট ভাইবোন। শিল্পী এবং ক্যামেরার পেছনে যারা কাজ করছেন সবাই এত কাছের, যে কারণে আমার মনে হচ্ছে কাজটি বেশ আরামদায়কই হবে। সেই সাথে আশা করি অনেক ভালো একটি কাজ হবে।’
নির্মাতা রনি ভৌমিক জানান, গরমের সময় আসার আগেই বিজ্ঞাপনটির প্রচার শুরু হবে। জাহিদ হাসান ও চঞ্চল চৌধুরী একসঙ্গে একটি নাটকেই অভিনয় করেছিলেন। মোস্তফা কামাল রাজের নির্দেশনায় ‘অর্ডার’ ধারাবাহিকেই অভিনয় করেন। একসাথে তাদের দু’জনের এটি প্রথম কাজ।

Check Also

**** তবু চলে গেলে বলে ****

আমার ছায়ার মেঘ সরে গেলো দূরে, সান্ত্বনা আর দেবেনা কভূ মাথায় হাত বুলে দিয়ে। Loading... …

Leave a Reply

Your email address will not be published.