Home / LETTERBOX

LETTERBOX

পরাজিত আমি, তোদের হাসিটুক আমায় দে।

চিরকুট: মোহাম্মদ মুইনূল প্রতিনিয়ত সকালের স্বপ্ন! প্রতিদিন হাটা-চলা হাজার হাজার অন্ধকারের সাথে সেই অন্ধকারে বসে বসে আলোর স্বপ্ন। দেখতে হয়ত দোষ নেই। কিন্তু জানি এই স্বপ্ন কখনোই পূরণ হবেনা। এমন স্বপ্ন গুলো হয়ত পূরণ হয় না। মন তো আলো তোকেই ভালোবাসে। তুই আমার হইস আর না হইস। অজানা কতশত পাটকেল ক্ষত-বিক্ষত করে রেখেছে অদেখা ভিতরটাকে। প্রতিনিয়ত কত রক্তক্ষরণ। যা দেখে বুঝার কোন উপায় নেই। রক্তশূন্য আমি অজানা দূর্ঘম পথ, জানি না কতখানি পাড়ি দিয়ে একদিন আমার পথ ফুরাবে। আর চলতে হবেনা। আর দেখতে হবেনা অসহায় চোখ দিয়ে অবিরত রক্তক্ষরণ। করুণ কোন আকুতি, যার শব্দ কারো কাছেই পৌছায়না। নিঃষ্ফল কিছু যুদ্ধ, …

Read More »

গড়িয়ে যাওয়া সময় ঘড়ি: মুইনূল চিরকুট

কলেজ জীবনে শুরুর দিকে শ্রীকান্তের আমার সারাটা দিন মেঘলা আকাশ বৃষ্টি গানের সুরে ভেসে যেতাম না জানা কল্পনার জগৎে। কল্পনার ঝুম বৃষ্টিতে আমি আর তিনি ভিজে একাকার। অতপর কলেজ জীবনের মাঝামাঝি এসে বৃষ্টি তোমাকে তাই ফিরিয়ে দিলাম….এই লাইনটা খুব ভালো লাগত। কলেজের এর শেষের দিকে যে গান খুব মনে ঘুরপাক দিচ্ছিল কফি হাউজের সে আড্ডা আজ আর নে্ই।…হাম মান্নাদা। তার সুরের মূর্ছনায় চোখের কোণে অশ্রূ কোণা বেয়ে পড়তে পড়তে …. নেমে পড়তে হল জীবন যুদ্ধে…. অতপর শত জুতা ক্ষয়ে, রোদে তাপ সয়ে,,,,, মিলে গেল একখানা চাকরি! এর পরের গানটা হওয়া উচিত ছিল ….এটা কি ২৪৪১১৩৯….মিটার যাচ্ছে বেড়ে এই পাবলিক টেলিফোনে….জরুরী …

Read More »

যন্ত্র যন্ত্রণা নয়: মোহাম্মদ মুইনূল – চিরকুট

যন্ত্র নিয়ে পড়াশোনা।সমাজের ইট-পাথরে ঠোক্কর খেতে খেতে নিজেও যন্ত্র হয়ে যাচ্ছি। এক সময় খুব সফট একটা মন ছিল, যা ভালোবাসতে চাইত, পেতেও কোন কার্পন্য ছিলনা। এখন নিথর দুখানা চোখ, শুধু পানির গভীরতা পরিমাপ করে। অনাকাক্ষিত কোন ভালোবাসার নয়ন, আমার দুচোখে সন্দহের বীষ। হয়ত তাতে সে ঝাঝরা হয়, হয়ত হয়না। বীষক্রিয়া থেকে আমারই শুধু মাপ নেই। একসময় খুব কাদতাম ইলিয়াস কাঞ্চনের মতন। মাঝে মাঝে কান্নার বেগ এত বেড়ে যেত যে সেখানে ওমর সানিকে যুক্ত করা লাগত। এই কান্নার নাম দিয়েছি ওমর-কাঞ্চন বেদনা। এখন এই বেদনাখানা নেই। মিস করি মাঝে মাঝে। এই কমভাইন্ড বেদনাটিরে। এখন দশা ট্রাসফারটের সোর্য়াসনিগার মতন। উপর দিয়ে ক্রেন …

Read More »